আমার সাথে রাত্রী যাপন করতে চেয়েছিল জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক

0
1019

সুরভিন চাওলাকে বলিউডের সাহসী নায়িকা বলা যেতে পারে। ‘হেট স্টোরি টু’ ছবিতে তিনি অভিনয় করেছেন একাধিক অন্তরঙ্গ দৃশ্যে। ‘পারছেড়’ ছবিতে সম্পূর্ণ নগ্ন হয়েছিলেন। স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবি ‘ছুরি’তেও তাকে পরিচালক ও অভিনেতা অনুরাগ কাশ্যপের সঙ্গেও বেশ খোলামেলা দৃশ্যে অভিনয় করতে দেখা গেছে। এবার নতুনরূপে আসছেন ডিজিটাল দুনিয়ায়। এএলটি (অল্ট) বালাজি প্রযোজিত ওয়েব সিরিজ ‘হক সে’তে সুরভিনকে দেখা যাবে শিশু বিশেষজ্ঞের চরিত্রে।

তাঁর বিপরীতে আছেন রাজীব খান্ডেলওয়াল। কেন ঘোষ পরিচালিত এই ওয়েব সিরিজটি মুক্তি পাবে ফেব্রুয়ারিতে।‘হক সে’তে নিজের চরিত্র নিয়ে তিনি বলেন, ‘ এই ওয়েব সিরিজে আমাকে ভিন্ন চরিত্রে দেখা যাবে। কাশ্মীরের প্রেক্ষাপটে ওয়েব সিরিজটির গল্প। চার বোনের অধিকার আদায় আর স্বপ্ন পূরণের গল্প। আমরা চার বোন খুবই সাহসী। কীভাবে আমরা সব বাধা অতিক্রম করে নিজের স্বপ্ন পূরণ করব, তারই গল্প। এই ছবিতে আমি শিশু বিশেষজ্ঞ। চরিত্রটি খুব সুন্দর। আমি পরিবারের বড় মেয়ে। বোনদের ব্যাপারে খুব রক্ষণশীল। অনেকটা মায়ের মতো।’

পর্দায় অন্তরঙ্গ হতে নাকি অস্বস্তি বোধ করেন না জানিয়ে তিনি বলেন, ‘একদমই হয়নি। প্রথম “হেট স্টোরি টু”তে সাহসী দৃশ্যে অভিনয় করেছি। আর তখন মানসিকভাবে প্রস্তুত ছিলাম। কারণ এটা শুধু একটা কাজ ছিল। চিত্রনাট্যের প্রয়োজনে অভিনেতার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হতে হয়েছে। যদি জোর করে চিত্রনাট্যে এ ধরনের দৃশ্য ঢোকানো হতো, তখন আপত্তি থাকত। কিন্তু এই ছবিতে সুন্দরভাবে নারী-পুরুষের ভালোবাসাকে পর্দায় তুলে ধরা হয়েছে। এর মধ্যে অন্যায় কোথায়? “পারছেড়” ছবিতে নগ্ন হয়েছি। শরীর নিয়ে আমার কোনো ছুতমার্গ নেই।

দুই বছর আগে আমার বিয়ে হয়েছে। আমার স্বামীরও এ ক্ষেত্রে কোনো আপত্তি নেই। তিনি বরং আমাকে উৎসাহিত করেন।’
শুনেছি ‘ছুরি’ ছবিতে আপনি অনুরাগকে অন্তরঙ্গ দৃশ্যে অভিনয় করতে সাহস জুগিয়েছেন? সুরভিন বলেন, ‘অনুরাগ আমার খুব ভালো বন্ধু। ‘আগলি’তে কাজ করার সময় থেকে ওর সঙ্গে দারুণ বন্ধুত্ব হয়। অনুরাগ ক্যামেরার সামনে আমার সঙ্গে অন্তরঙ্গ হতে ভয় পেয়েছে। আমি ওকে ওর টিনএজের প্রথম চুম্বনের কথা মনে করতে বলি।

জীবনের প্রথম চুম্বন করতে সবারই একটু অস্বস্তি হয়। তারপর সব ভয়, সব লজ্জা কেটে যায়। তবে অন্তরঙ্গ দৃশ্যে অভিনয় করা একদমই মজার কথা নয়। এর মধ্যে অনেক টেকনিক থাকে। এই দৃশ্যে যখন অভিনয় করি, তখন মনে হয় দৃশ্যটা কখন শেষ হবে।’‘কাস্টিং কাউচ’ প্রসঙ্গে বলিউডের এই অভিনেত্রী বলেন, ‘আমাকে একাধিকবার এর শিকার হতে হয়েছে। আমার কাছে অনেক কুপ্রস্তাব এসেছে। আর রাজি হইনি বলে আমাকে অনেক কাজ ছাড়তে হয়েছে।

শুধু বলিউডে নয়, দক্ষিণেও আমাকে একাধিকবার এর মুখোমুখি হতে হয়েছে। একজন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক আমাকে তাঁর শয্যাসঙ্গী হওয়ার প্রস্তাব দেন। তাঁকে জানাই, আমি কোনো সমঝোতা করতে পারব না। আমি মনে করি, সব মেয়েই যদি “না” বলতে শেখে, তাহলে এই প্রথা একদিন বন্ধ হয়ে যাবে। আমাদের মধ্যে কেউ কেউ তাদের প্রশ্রয় দিই বলে তারা এত সাহস পাচ্ছে।’ ‘হক সে’ ওয়েব সিরিজের পরে সুরভিনকে দেখা যাবে নেটফ্লিক্সের ‘স্যাক্রেড গেম’ ওয়েব সিরিজে। এই ওয়েব সিরিজে তাঁর সঙ্গে আছেন রাধিকা আপ্তে, নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকী ও সাইফ আলী খান।

LEAVE A REPLY