প্রেমিকার সঙ্গে ভিডিওতে কথা বলতে বলতে প্রেমিকের আত্মহত্যা

0
210

প্রেমিকার সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপে ভিডিও কলের মাধ্যমে কথা বলছিলেন আকাশ।  তারই মাঝে আচমকা পিস্তল বের করে নিজের মাথায় ঠেকিয়ে ট্রিগার টিপে দিলেন উনিশ বছরের এই তরুণ। ভারতের পাটনায় সোমবার এই ঘটনা ঘটেছে।

এবিপি আনন্দের খবরে বলা হয়, গতবছর আকাশ ইন্টারমিডিয়েট পরীক্ষায় অকৃতকার্য হন। তারপর প্রেমের সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে চাপ দেয় তার বাবা। সে রাতে আকাশ তার বাড়িতে একাই ছিলেন। এরপরে তার প্রেমিকাকে  হোয়াটসঅ্যাপে ভিডিও কল করেন তিনি।

লাইভ ভিডিওর মাঝখানে তিনি একটি সেমি অটোমেটিক দেশি পিস্তল বের করেন। মেয়েটি তা দেখে তাঁকে বলেন, পিস্তল সরাতে, ম্যাগাজিন বার করে নিতে। কিন্তু তা শোনেননি আকাশ। মোবাইল ফোন পায়ের কাছে বিছানায় রেখে শুয়ে পড়েন। সেই অবস্থাতেই মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে ট্রিগার টিপে দেন।

ভিডিও কলে আকাশের কথা আচমকা বন্ধ হয়ে গেলে তার এক আত্মীয়কে ফোন করেন জানান ওই প্রেমিকা। ভোর পাঁচটা নাগাদ সেই আত্মীয় বাড়ির ছাদ দিয়ে আকাশের বাড়িতে ঢোকেন। পরে তিনি পুলিশে খবর দেন। আকাশের ঘর থেকে একটি ৯ এমএম পিস্তল, লোডেড ম্যাগাজিন, পেলেট ও সেলফোন উদ্ধার করা হয়।

জানা গেছে, আকাশের বাবা তার প্রেমের সম্পর্ক মেনে নিতে পারেননি। এ জন্য ছেলেকে বকাবকিও করেন তিনি। আকাশ বিষয়টি তার প্রেমিকাকে জানিয়ে ভিডিও কলে লাইভে আসতে বলেন। তিনি তাকে শেষবারের মত দেখতে চান। এরপরেই কথা বলতে বলতে আত্মহত্যা করে আকাশ।

SHARE

LEAVE A REPLY